ঘোষণা

আমি দেশ, জাতি, বিশ্ব মানবতার মঙ্গলার্থে শপথ করছি যে, আমি মিথ্যা কথা বলাসহ সব রকম অসৎ চিন্তা ও কাজ থেকে নিজেকে …

গঠনতন্ত্র

এই সংগঠন এথিকস ক্লাব বাংলাদেশ সংক্ষেপে এথিকস ক্লাব নামে পরিচিত হবে৷

কর্মপরিকল্পনা

প্রতি বছর ২৫ জানুয়ারি এথিকস ডে (নৈতিকতা দিবস) হিসেবে উদযাপন করা

নৈতিকতা দিবস

২৫ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক এথিকস ডে উদযাপনের অনুরোধ জানিয়ে জাতিসংঘের নিকট চিঠি

এথিক্স ক্লাব বাংলাদেশ গঠনে সহযোগিতা প্রত্যাশা

প্রিয় মহোদয়,স্কলারস বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সশ্রদ্ধ শুভেচ্ছা। স্কলারস বাংলাদেশ প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে আয়োজন করেছিল ‘প্রথম অনাবাসী বাংলাদেশী (ঘজই/চইঙ) সম্মেলন ২০০৫, ২০০৭’ এবং ‘প্রথম অনাবাসী বাংলাদেশী (ঘজই) মানব সম্পদ উন্নয়ন ও সম্ভাবনা সম্মেলন ২০০৯’। তিনটি সম্মেলনের সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে স্কলারস বাংলাদেশ দেশের উন্নয়নে ভ‚মিকা রাখার দায়বদ্ধতা থেকে আরো অনেকগুলি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। আমাদের কর্মসূচির মধ্যে অন্যতম একটি হলো ‘এথিক্স ক্লাব বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা। এ সংগঠন নিয়মিতভাবে সভা, সমাবেশ, মূল্যবোধ, মানবিকতা ও দেশপ্রেমে প্রবুদ্ধ হবে। এই সংগঠন নিয়মিতভাবে সদস্যবৃন্দ শ্রেয় মূল্যবোধসম্পন্ন হয়ে উঠতে পারে এবং সমৃদ্ধ বাংলাদেশ নির্মাণে রাখতে পারে অশেষ ভ‚মিকা।

উল্লেখ্য যে, কেবল পাঠ্যপুস্তক ও মুখস্থনির্ভর শিক্ষাব্যবস্থায় কোনোভাবেই সৎ, দেশপ্রেমিক ও উন্নত মানবিক গুণাবলিসম্পন্ন নাগরিক সৃষ্টি সম্ভব নয়। প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থায় সনদনির্ভর চাকরিপ্রত্যাশী মানুষ সৃষ্টি সম্ভব হলেও তা দিয়ে জাতিকে কাঙ্খিত গন্তব্যে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়।

স্কলারস বাংলাদেশ এথিক্স কøাব বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা এবং সংগঠনের প্রাত্যহিক কর্মসূচির মাধ্যমে একটি মাদকমুক্ত শিক্ষাঙ্গন এবং সৎ, দেশপ্রেমিক ও শ্রেয় মূল্যবোধসম্পন্ন প্রজন্ম সৃষ্টির সংগ্রামে আপনাদের সহযোগিতা একান্তভাবে প্রত্যাশা করছে। আমরা আপনাদের প্রতিষ্ঠানে এথিক্স ক্লাব বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করতে চাই এবং নতুন প্রজন্ম ও সমাজ নির্মাণের যাত্রায় আপনাদেরকে সারথি হিসেবে কামনা করছি।

নিউজ এন্ড ইভেন্ট

স্কলার্স বাংলাদেশ আপনাদের প্রতিষ্ঠানে
এথিক্স ক্লাব প্রতিষ্ঠার জন্য আপনার সহযোগিতা
এবং অনুমতি চায়

এবার যারা আদর্শ শিক্ষক সম্মাননা গ্রহণ করবেন

গত ১১ বছর এই সম্মাননা গ্রহণকারীগণের উল্লেখযোগ্য কয়েকজন